Home / প্রাচীন ইতিহাস / আশ্চর্য পৃথিবীর অদ্ভুদ সব প্রাচীন স্থাপনা – যা দেখলে আপনি অবাক হবেন।

আশ্চর্য পৃথিবীর অদ্ভুদ সব প্রাচীন স্থাপনা – যা দেখলে আপনি অবাক হবেন।

আমাদের এই পৃথিবী সত্যই খুব সুন্দর ও বিষ্ময়কর। সেই প্রচীন পৃথিবীর আমল থেকেই পৃতিবীতে রয়েছে এমন সব আশ্চর্য স্থাপনা যা দেখলে বা জানলে আপনি অবাক হবেন। এর মধ্যে মানুষের তৈরি বা প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি বিষয়ও রয়েছে। আজ আপনাদের সামনে এমন ৫ টি জিনিস তুলে ধরছি।

১। ভারতের অজান্তা গুহা-
ধারনা করা হয় যে এই গুহা তৈরি করা হয় আজ থেকে প্রায় খ্রিস্টপূর্ব ২য় শতক থেকে খ্রিস্টীয় ৭ম শতাব্দীর মধ্যে কোন এক সময়। এত প্রাচীন আমলে পাহাড়ের পাথর কেটে এতটা নিখুতবাবে কোন পদ্ধতিতে তৈরি করা হলো তা আজও বিষ্ময়। এখনকার দিনেও যা অসম্ভব। এই গুহার মধ্যে পাওয়া যায় বৌদ্ধদের বিভিন্ন চিত্রকর্ম।এটা ভারতের আগ্রাবাদ শহর থেকে ১০০ কিলোমিটার উত্তর-পঊর্ব কোনে অবস্থিত।

২। নিউগ্রেজ-
এটা একটা বিশাল আকৃতির স্থাপনা।এটা UFO আকৃতির স্থাপনা। এটা অবস্থিত আয়ারল্যান্ডে। এটা তৈরি করা হয় নবপলিও যুগে। খ্রিস্টপূর্ব ৩২০০ সালে। এতে রয়েছে বিশাল দরজা। এর ভিতরে আছে অনেক গুলো রুম যার দেওয়ালে অনেক খোদাই নকশা।

৩।ভেরিনকুই-
এটা একটা বহুতল বিশিষ্ট ভুগর্ভস্থ শহর। এটা তুর্কিতে অবস্থিত। এ পর্যন্ত পাওয়া ভুগর্ভস্থ শহরের মধ্য এটা সবচেয়ে বড়। এটা শত্রুর আক্রমনের হাত থেকে বাচার জন্য তৈরি। প্রায় ২০ হাজার লোক খুব ভালোভাবে এখানে বাস করতে পারে। আলো প্রবেশের জন্য এখানে প্রায় ১৫ হাজার জানালা আছে।

৪।আর্টিমিসের মন্দির-
এটা ডায়নার মন্দির নামেও পরিচিত। এটা গ্রিক মন্দির এবং তা নির্মাণ করা হয়েছিল খ্রীস্টপূর্ব ৫৫০ অব্দে। এথেন্স ও রোমের লোকেরা বিভিন্ন দেবদেবির পূজা করতো এখানে। ৩৫৬ খ্রিস্ট-পূর্বাব্দে এক ভয়াবহ অগিকান্ডে এই মন্দিরটি ধ্বংস হয়ে যায়।

৫।হ্যালিকারনেসাসের সমাধি মন্দির-

তিন স্তরে বিভক্ত হ্যালিকারনেসাসের সমাধি মন্দির তৈরি করা হয়েছিল খ্রিস্টপূর্ব ৩৫০ অব্দে তুরস্কের। ১৩৫ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট মন্দিরটি তৈরি হয়েছিল সম্পূর্ণ মর্মর পাথরে। রাজা মোসাল্সের সমাধি তেরি করেন রানি আর্টিমসিয়া।

About Rohan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *