ব্লগ একাত্তর-

খেলার মাঝে শিক্ষা

আপনার সন্তান আপনার ভবিষ্যৎ। তাই আপনার সন্তানের পড়াশুনার পাশা-পাশি কিভাবে শিক্ষা দিবেন তা নিয়ে আজকে আমার লেখা,,, আশা করি উপকৃত হবেন।

শিশুতা সাধারণত খেলা প্রিয় হয় । আর এ খেলা প্রিয় হওয়া অনেক ভাল। কিন্তুু দেখা যায় কিছু শিশুরা খেলা প্রতি আকর্শিত হয়না। এটা একটা চিন্তার বিষয়,, আর এ চিন্তা থেকে মুক্তির জন্য কিছু নিয়ম অনুসরণ করুন,,,,

১। শিশুদের হাতে মোবাইল বা কম্পিউটার কম দিন : আজকাল প্রায় শিশু মোবাইল বা কম্পিউটারের প্রতি দারুন আকর্শন। মোবাইল বা কম্পিউটারে বাচ্চারা গেম খেলতে বেশি সময় দিলে তারা বাইরে খেলাধুলা বা সাধারণত খেলা থেকে মজা উপভোগ করে না। তাই যতটা সম্ভব আপনার বাচ্চার হাতে মোবাইল বা কম্পিউটার কম দিন ।

২। বাচ্চাদের সহজ খেলনা উপহার দিন : আমরা অনেক সময় বাচ্চাদের একটু দামি বা খেলতে একটু কঠিন হবে এ ধরনের খেলনা দিয়ে থাকি, আর এ কারণে বাচ্চারা খেলনা প্রিয় হয় না । তাই যতটা সম্ভব আপনার বাচ্চাকে সহজ খেলনা উপহার দিন। যেমন :-পুতুল, কাগজের খেলনা, ব্লগ জাতীয় খেলনা, প্লাস্টিকের বা কাঠের হালকা জাতীয় খেলনা। আর আপনি অাপনাদের ব্যবহারের বালিশ,সোফা সেটের বালিশ সহ আপনি দিতে পারেন আপনার বাচ্চাকে খেলনা হিসাবে।

৩। পড়াশুনার চাপ : আমরা অনেকেই বাচ্চাদের খুব অল্প বয়সেই বাচ্চা দের পড়ার জন্য বেশি চাপ দিয়ে থাকি যা বাচ্চাদের জন্য অতিরিক্ত হয়ে যায়। আর এ চাপের জন্য বাচ্চার মানুষিক আঘাত হতে থাকে ফলে বাচ্চারা একগিয়েমি হয়ে যায়। তাই বাচ্চাদের খেলা ধুলা করার সময় দিন।

৪। শিশুদের অন্য শিশুদের সঙ্গে মিশতে দিন : আপনার শিশুকে অন্য শিশুদের সঙ্গে মিশতে দিবেন, খেলতে দিবেন, গল্প করতে দিবেন। এ কারণে দিবেন তা হলো বাচ্চাদের মানষিক বিকাশসহ তারা নতুন নতুন খেলা তৈরি করবে এবং নিয়মিত খেলার প্রতি মনযোগী হবে।

৫। স্বাধীন সময় দিন : আপনি আপনাদের বাচ্চা কে কিছু সময় ফ্রি করে দেন, তাইলে তারা তাদের মুক্ত সময় টুকু নতুন কিছু চিন্তা ও মনে প্রশান্তি ঘটবে। এতে বাচ্চা ভবিষ্যৎের সম্পকে অনুপ্রাণিত হবে।

<নদি-০২১০T-১৮>

facebook.com /Golam Rabby Raky
A writer of R1

Advertisements

Add comment

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.