ব্লগ একাত্তর-

দেকে নিন আপকামিং অ্যান্ড্রয়েড পি এর আপকামিং বেস্ট ফিচারগুলো

বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলোতে অ্যান্ড্রয়েড ওরিও বা অ্যান্ড্রয়েড ৮ বাজার কাপাচ্ছে। কিন্তু আমাদের দেশের অনেক স্মার্টফোনগুলোই অ্যান্ড্রয়েড ওরিও জন্য উপযুক্ত নয়। অন্যদিকে আমরা শীঘ্রই অ্যান্ড্রয়েড এর নতুন সংস্করণ হাতে পেতে যাচ্ছি। এ বছরের শেষের দিকে অ্যান্ড্রয়েড ৯ বা অ্যান্ড্রয়েড পি (Android P) বাজারে আসার কথা রয়েছে। আর এরই মধ্যে Android P Developer Preview গুগলের সাইটে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর তা থেকেই আমরা অ্যান্ড্রয়েড পি এর কিছু নতুন ফিচারগুলোর সম্পর্কে জানতে পেরেছি। আর সেগুলো নিয়ে আজকের এই টিউনটি সাজানো হয়েছে।

more post: কিভাবে Google স্ট্রিট ভিউ কাজ করে? ক্যাপচার সবকিছু – ব্যাখ্যা

উল্লেখ্য যে বাংলাদেশে ২০১২ সাল নাগাদ অ্যান্ড্রয়েড চালিত স্মার্টফোনগুলো ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হতে থাকে। এবং ২০১৫ সাল নাগাদ প্রায় সবাই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করা শুরু করে। যার ফলে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় স্মার্টফোন কোম্পানি আইফোন তাদের উপযুক্ত একটি প্রতিদন্ধি পেয়ে যায়।

তো আগত নতুন অ্যান্ড্রয়েড পি এর নতুন কিছু ফিচার সম্পর্কে চলুন জেনে নেওয়া যাক:

১) ইনডোর লোকেশন ট্রাকিং

গুগলের সার্চ ইঞ্জিন ব্যতিত অন্য কোন জিনিসটি সবথেকে কাজের? অবশ্যই সেটা গুগল ম্যাপস। কিন্তু গুগল ম্যাপস সঠিক ভাবে কাজ করার জন্য কিছু টেকনোলজির উপর এর নির্ভর থাকতে হয় যেমন GPS, সেল টাওয়ার ট্রায়ানগুলেশন ইত্যাদি এগুলো আবার ইনডোরে ভালো কাজ করে না। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড পি এর নতুন ফিচার Wi-Fi Round-Trip-Time (RTT) এর মাধ্যমে এখন আপনি ইনডোর লোকেশন ট্রাকিং খুব সহজেই করতে পারবেন। এটি মূলত আপনার ঘরের ওয়াই ফাই একসেস পয়েন্টকে লক্ষ্য করে ইনডোরে আপনার অবস্থান নির্ধারণ করে থাকে। এর মাধ্যমে গুগলের ভয়েস এসিসটেন্স কে আরো উন্নত ও কার্যকরি হিসেবে আমাদের কাছে তুলে ধরা যাবে এবং একই সাথে লোকেশন ভিক্তিক অনলাইন বিজ্ঞাপণ প্রদর্শন করাটাও অনেক সহজ হয়ে পড়বে।

প্রথম দিকে এই টেকনোলজির কিছু লিমিটেশন রয়েছে। যেমন এই পদ্ধতি কাজ করার জন্য আপনার ডিভাইসের লোকেশন সার্ভিস এবং ওয়াই ফাই দুটোকেই এক সাথে চালু রাখতে হবে এবং এর মাধ্যমে কোনো এপপ আপনার লোকেশন খোঁজার জন্য আপনার ডিভাইসের ACCESS_FINE_LOCATION পারমিশন সহ থাকতে হবে।

more post: সফটওয়্যার কি? সফটওয়্যারের প্রকার? সফটওয়ারগুলো বানাই কে?

২) Notches সার্পোট:

প্রথম দিকে যখন আইফোন এক্স বাজারে আসে তখন তার নতুন Notches Display সাইজ বা ফিচারটি দেখে অনেক অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা একে হেসেই উড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু কালের ক্রমে এখন অনেক অ্যান্ড্রয়েড ভিক্তিক স্মার্টফোন কোম্পানিগুলো তাদের ফ্ল্যাগশীপ ফোন সহ অনেক ফোনেই Notches সহ ডিসপ্লে বানানো শুরু করেছে। কিন্তু এবার থেকে অ্যান্ড্রয়েড পি Notch যুক্ত ডিভাইসের সার্পোটে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল। মানে হচ্ছে এখন অ্যান্ড্রয়েড পি এর মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলোও অফিসিয়ালি Notches সাপোর্টেড হবে। অর্থ্যাৎ আমরা ২০১৯ সাল নাগাদ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলোর ডিসপ্লে স্টাইলে পরিবর্তন দেখতে চলেছি।

৩) বাম দিকে টাইম:

অ্যান্ড্রয়েডের জন্মের সময় থেকে আমরা টাইম অপশন কে ডিভাইসের উপরের ডান দিকে দেখে এসেছি। আর তাই হয়তো নির্মাতারা বোরিং ফিল করে এবারের অ্যান্ড্রয়েড আপডেটে টাইম অপশনকে ডিভাইসের উপরের বাম দিকে দিয়ে দিয়েছেন। তবে যেহেতু এটিকে বর্তমানে আমরা বেটা সংস্করণে দেখেছি তাই এটিকে স্থায়ী ফিচার হিসেবে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে Notches সার্পোট এর জন্যেও এই পরিবর্তনটি আনা হতে পারে।

৪) নোটিফিকেশন আপগ্রেড:

বর্তমান অ্যান্ড্রয়েড সংষ্করণ অ্যান্ড্রয়েড ওরিও থেকেই আপনার নোটিফিকেশন প্যানেলে অনেক পরিবর্তন দেখেছেন। আর এর পরবর্তী আপকামিং অ্যান্ড্রয়েড সংষ্করণ অ্যান্ড্রয়েড পি‘তে আপনার নোটিফিকেশনের আরো আপগ্রেড পাবেন। নোটিফিকেশনে এবার আপনার ইউজার এভাটার এবং মিডিয়া ফাইলসেরও প্রিভিউ দেখতে পারবেন এবং নোটিফিকেশন থেকেই ইমেইলের কুইক রিপ্লে দিতে পারবেন।

৫) AI ভিক্তিক নোটিফিকেশন আপগ্রেড:

নোটিফিকেশনের আরো উন্নত এবং চমৎকার আপগ্রেড আপনি পাচ্ছেন অ্যান্ড্রয়েড পি তে। আগত এই অপারেটিং সিস্টেমে আপনি পাচ্ছেন AI ভিক্তিক অটো রেন্সপন্ড সিস্টেম যেটি বর্তমানে শুধু জিমেইলে কাজ করবে। ভয়েস-টু-টেক্স, সোয়াইপ-টাইপিং ইত্যাদি কে ভুলে যান কারণ এবার আপনার হয়েই অ্যান্ড্রয়েড পি AI আপনার যাবতীয় ইমেইলের সঠিক রিপ্লে নিজে নিজেই দিতে পারবে।

৬) হোল্ডিং ফোনঃ

আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটি যদি সামনে বা পিছনে ডুয়েল ক্যামেরা সিস্টেম থাকে তাহলে অ্যান্ড্রয়েড পি আপনারই জন্য। কারণ অ্যান্ড্রয়েড পি অপারেটিং সিস্টেম এবার অফিসিয়াল ভাবে হোল্ডিং ফোন মোডকে সার্পোট করবে। যার ব্যবহারের মাধ্যমৈ ডুয়েল ক্যামেরা সিস্টেম এপপগুলোর (Seamless Zoome, Bokeh, Stereo vision ইত্যাদি) ব্যবহার আরো সহজ হয়ে যাবে।

৭) সিকুরিটি আপগ্রেড:

প্রতিটি অ্যান্ড্রয়েড আপগ্রেডে ছোট খাট কিংবা বড়সড় সিকুরিটি আপগ্রেড থেকে থাকে। আর এবারের অ্যান্ড্রয়েড পি আপগ্রেডেও তার ব্যতিক্রম থাকছে না। এবারের অ্যান্ড্রয়েডে আমরা দুটি নতুন সিকুরিটি আপগ্রেড ফিচার পাচ্ছি। প্রথমটি হলো Unified Fingerprint-Authentication Screen। এটি মূলত আপনাকে ফিঙ্গার প্রিন্ট দেবার জন্য একই স্ক্রিণ বার বার প্রয়োজনের সময় প্রদর্শন করবে যাতে আপনার ফিঙ্গার প্রিন্ট চুরি না হয়ে যায়।

আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে এনক্রিপটেড ব্যাকআপ সিস্টেম। মানে আপনি যখন আপনার ব্যাকআপকৃত ডাটাকে একসেস করতে যাবেন যখন আপনাকে আপনার ফোনের প্যাটান লক বা পাসওর্য়াড, পিন ইত্যাদি প্রবেশ করতে হবে। এর মাধ্যমে আপনার ব্যাকআপকৃত ডাটা সিকুরিটি বহুগুণে বাড়িয়ে তোলা সম্ভব।

৮) ব্যাকগ্রাউন্ড এপপস আপগ্রেড

অ্যান্ড্রয়েড ওরিও একটি মেজর পরিবর্তন হিসেবে আমরা দেখেছি যে এখানে তারা ব্যাকগ্রাউন্ড এপপসের উপর অনেকগুলো পরিবর্তন এনেছে যার মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড এর পারফরমেন্স এবং ব্যাটারী লাইফ বৃদ্ধি করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় অ্যান্ড্রয়েড পি অপারেটিং সিস্টেমও আমরা আরো কিছু পরিবর্তন দেখতে পারবো।

যেমন ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে এপপসগুলো আর ইভেন্ট রির্পোটস পাবে না, বিশেষ করে Accelerometers এবং Gyroscopes ব্যবহার করে তারা আর ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে ইভেন্ট রির্পোটস দিতে পারবে না। এছাড়াও ব্যাকগ্রাউন্ড এপপসগুলো আর ডিভাইসের মাইক্রোফোন এবং ক্যামেরা ব্যবহার করতে পারবে না। এতে ব্যবহারকারীর প্রাইভেসি রক্ষা আরো সহজ হয়ে যাবে।

more post: ইন্টারনেট কি | এর মালিক কে এবং কিভাবে ইন্টারনেট কাজ করে?

৯) নাম

একটি জিনিস খেয়াল করলে দেখবেন  যে প্রতিটি নতুন অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণগুলো নামটি একটি কোড নাম এবং Alphabetical অর্ডারে সাজানো হয়ে থাকে এবং এটি মূলত কোনো খাবারের নামের সাথে মিলিয়ে রাখা হয়। যেমন Kit-Kat, Oreos, Honeycombs, Jelly Beans ইত্যাদি। আর সাধারণত গুগল তাদের অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণের নাম রিলিজের মাত্র কয়েকদিন আগে রিভিল করে। কিন্তু এবার এর ব্যতিক্রম হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড পি এর নাম মুক্তির অনেক আগেই রিভিল করা হয়েছে এবং অ্যান্ড্রয়েড পি এর আলাদা কোনো খাবার ভিক্তিক নাম নেই। Android P হতে পারতো Android Peeps, Android Popsicle, Android Pop ইত্যাদি। কিন্তু এখন পর্যন্ত গুগল অ্যান্ড্রয়েড পি এর কোনো কোড নাম রাখে নি। সেটার নিশ্চিত হবার জন্য অ্যান্ড্রয়েড পি এর মুক্তি পর্যন্ত আমাদেরকে অপেক্ষা করতে হবে।

১০) নিউ লুক:


এ ব্যাপারে আলাদা করে কিছু বলার নেই। অ্যান্ড্রয়েড পি তে আপনারা অ্যান্ড্রয়েডকে নতুন ভাবে সাজানো অবস্থায় পাবেন। দেখা যাক শুধু সাজগোজ এর দিক থেকে নতুন নাকি ফিচারগুলোর দিক থেকে নতুনের ধারা অব্যাহত রাখবে অ্যান্ড্রয়েড পি।

তো এই ছিলো আপকামিং অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ অ্যান্ড্রয়েড পি এর কিছু উল্লেখযোগ্য ফিচার। তবে মুক্তির পর আমি আশা করবো এগুলো ছাড়াও আরো নতুন কিছু ফিচার অ্যান্ড্রয়েড পি আমাদেরকে উপহার দিতে পারবে। তবে আমরা ব্যক্তিগত ভাবে কবে নাগাদ এই নতুন সংষ্করণের অ্যান্ড্রয়েডগুলো চালাতে পারবো সেটা এখনো পরিস্কার নয়। কারণ নতুন সংস্করণগুলো সকল ডিভাইসকে সার্পোট করবে না আর নতুন সংস্করণের অ্যান্ড্রয়েড এর জন্য নতুন ডিভাইস নিতেও আমাদের অধিকাংশ ব্যবহারকারীরাই আগ্রহ প্রকাশ করবেন না। টিউনটি সম্পর্কে আপনার কোনো মতামত থাকলে সেটা অবশ্যই নিচের টিউমেন্ট বক্সে জানান। আজ তাহলে এ পর্যন্তই থাক। আগামীতে অন্য কোনো টপিক নিয়ে আমি টিউনার সুমন চলে আসবো আপনাদেরই প্রিয় বাংলা কমিউনিটি প্রিয়টিউনস এ!

আজকের জন্য এতোটুকু ছিল| পরবর্তীতে অন্য টিপস-এন্ড-ট্রিকস নিয়ে হাজির হব| আপনি যদি আমাদের ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো পছন্দ করে থাকেন তাহলে নিচে কমেন্ট করতে ভুলবেন না| আর যদি আপনার কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে কমেন্টে জানাবেন| আমি answer করতে চেষ্টা করব| আর আমার ব্লগ ভিজিট করতে ভুলবেন না|

সৌজন্যে: bn.techzoa.com

Advertisements

sam_shimul

3 comments

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.