বাংলা জোকস

ঈদের প্রস্তুতিতে নাসিরুদ্দীন হোজ্জা।

একবার রজব মাসে নাছিরুদ্দীন হোজ্জা সফরে বের হয়েছেন। ইচ্ছে রজব আর শাবান সফর করে রমজানে কোথাও গিয়ে ইমামতি করবেন। তাতে ঈদের আগে দুই পয়সা উপার্জন হবে। কিন্তু রমজানে অনেক চেষ্টা করেও সে কোন কাজ পেল না। সবাই ফিরিয়ে দিলো। ফলে না খেয়ে মোল্লার মরার উপক্রম!

একদিন এক স্থানে খুব ভিড় লক্ষ করে সে এগিয়ে গেল। স্থানীয়য়রা একটি শিয়ার ধরেছে। কিছুদিন হলো শিয়ালের উৎপাতে নাকি সবাই অতিষ্ঠ। এবার যখন ধরা পড়েছে আচ্ছা করে শাস্তি দিতে হবে। কিন্তু কী ধরনের শাস্তি দেয়া যায় তা কেউ স্থির করতে পারছিল। তখন মোল্লাকে দেখে সবাই বলল, মোল্লাসাহেব এর বিচার আপনিই করুন।বেশ তো, বলেই মোল্লা শিয়ালটাকে ধরে ওর গায়ে তার আলখেল্লা ও মাথায় পাগড়ি পড়িয়ে ছেড়ে দিল। এমন কান্ডে উপস্থিত সবাই হইহই করে উঠল- মোল্লাসাহেব, আপনি শিয়ালটাকে ছেড়ে দিলেন!তাও আবার জামা-কাপর পড়িয়ে!ঠিকই করেছি মোল্লা বলল, এখন এই শিয়ালটাকে দেখে সবাই মোল্লা ভাববে।এবং কোথাও ঠাই হবেনা।ফলে অনাহারে মৃত্যু ছাড়া ওর আর উপায় থাকবে না। আপনিই বলুন, এরচেয়ে বড় শাস্তি আর কি হতে পারে? কথাটির অন্তর্নিহিত তৎপর‌্য বুঝতে পেরে উপস্থিত বিজ্ঞজনেরা মোল্লাকে ইমামতির কাজ দিলেন।

পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল, তা অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। আর সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন এই বলে

Facebook Comments
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top