দেশি সংবাদ

বৃক্ষমানবের ২৪টি অস্ত্রোপাচারের পর এখন তার কি অবস্থ্যা

আবুল বাজনদার  ‘বৃক্ষমানব’ হিসাবে পরিচিত। তার হাতে এবং পায়ের গাছের বাকলের মত টিউমার রয়েছে। আবুলের দুই বছর আগে ২৪টি টিউমার অস্ত্রোপচার করে তা অপসারণ করা হয়ে ছিল। তার অস্ত্রোপাচারের পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক বছর ধরে চিকিৎসা নিয়ে আসছেন। অস্ত্রোপচারের পর শারীরিক অবস্থা উন্নতি হওয়ার পর গণ মাধ্যমে আলোচনায় এসে পরে। আবার চিকৎসের দেওয়া দু:সংবাদ এর ফলে ফের শিরোনামে এসে যায় এই যুবক। অস্ত্রোপচারের কিছুদিন পর আবার আগের অংশগুলোতে সেগুলো গজাতে শুরু করে তার শরীরে।

গত ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে মোট ২৪টি অস্ত্রোপবার করা হয় আবুলের। হাত এবং পায়ে অস্ত্রোপচারের ফলে শরীর থেকে প্রায় ৫কেজি ওজনের টিউমার অপসারণ করে চিকিৎসকরা।

গত বছরের জানুয়ারিতে আশা প্রকাশ করে চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, আবুল আজানদার খুব দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবেন। কিন্তু সপরিবার সহ এক বছর ধরে হাসপাতালে বসবাস করে আসছেন।

ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের প্রধান সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেনের আশঙ্কা চেয়েও জটিল এই রোগ জানিয়েছেন মেডিকেল এক্সপ্রেস নামক এর একটি গণমাধ্যম।

আবুল বাজানদার খুলনার রিকশাচালক। তার ত্বকে এই বিরল রোগটি দেখা দেয়। এ কারণে শেকড় ও বাকলের মতো অংশ তৈরি হয়। তার রোগটির নাম  এপিডারমোডিসপ্লাসিয়া ভেরুসিফরমিস। এই জটিলতার কারণে রিকশা চালাতে পারছিলেন না তিনি। এরপর তাকে ২০১৬ সালে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করানো হয়।

এই রোগটির বৈশিষ্ট্য হলো আক্রান্ত মানুষটির শরীরে হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাসের সংক্রমণ হতে পারে। এতে ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়। এখনও এ রোগের সুনির্দিষ্ট কোন চিকিৎসা নেই।

সূত্র- ইন্টারনেট।

Facebook Comments
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top