Blog71

কম্পিউটার বার বার হ্যাং হওয়ার কারণ গুলো জেনেনিন

কেমন আছেন সবাই? আসাকরি ভালোই আছেন। কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের জন্য দারুন একটি কম্পিউটার টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি। যাদের কম্পিউটার বার বার হ্যাং হয়ে যায় তাদের জন্য আমার এই টিপসটি অনেক কাজে আসবে বলে আমি আসাবাদি। তাহলে বন্ধুগণ চলুন আমরা নিচের থেকে টিপসটি জেনে নেই আর কম্পিউটার হ্যাং হওয়া থেকে পিসিকে রক্ষা করি।

  • পিসির ফাইলগুলো এলোমেলোভাবে সাজানো থাকলেঃ– কম্পিউটারের ফাইলগুলো এলোমেলোভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকলে ঐ সব ফাইল নিয়ে কাজ করতে কম্পিউটারের অনেক বেশী সময় লাগে। যার করণে কম্পিউটার হ্যাঙ্ হয়।
    অনেক প্রোগ্রাম একসাথে চালু করলেঃ– মনে করেন আপনার কম্পিউটার RAM এর পরিমাণ ১জিবি কিন্তু আপনি অনেক বড় বড় কয়েকটি প্রোগ্রাম চালু করলেন। তাহলে হ্যাং হওয়াটাই স্বাভাবিক।
  • হাই গ্রাফিক্স সম্পন্ন গেম চালালেঃ– আপনার পিসির RAM যদি কম হয় কিন্তু আপনি যদি হাই গ্রাফিক্স সম্পন্ন গেম চালান তাহলে কম্পিউটার হ্যাঙ্ হয়ে থাকে।কেননা তখন RAM সম্পূর্ণ লোড হয়ে যায়।
    অতি উচ্চ মানের এন্টিভাইরাস ব্যবহার করলেঃ– আমরা ভাইরাস হতে মুক্তি লাভের আশায় এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করি। কিন্তু অনেক সময় কম্পিউটারের মানের কথা না ভেবেই উচ্চ ক্ষমতা ও উচ্চ মানের এন্টিভাইরাস ব্যবহার করে থাকি যার কারণে কম্পিউটার হ্যাং হয়।
  • হার্ডডিক্স এর কানেশন ঠিকমত না হলেঃ– কম্পিউটারের হার্ডডিক্স এর সংযোগ সঠিক না হলে হঠাৎ কম্পিউটার হ্যাঙ্ হতে পারে।
    RAM পরিমাণ কম হলেঃ– আমরা যখন কোনো কাজ করি তখন সেই কাজটা সম্পন্ন হয় কম্পিউটার RAM অঞ্চলে। আর এই RAM’র পরিমাণ কম হলে কম্পিউটার ঠিকমত কাজ করতে পারে না। এবং কম্পিউটারে হ্যাং ধরে।
    প্রসেসরের মান ভাল না হলেঃ– কম্পিউটারের কাজ করার পরিমাণ নির্ণয় করে কম্পিউটারের প্রসেসর। আর প্রসেসরের মান ভাল না হলে কম্পিউটার হ্যাং  হওয়াটাই স্বাভাবিক।
    অন্য কোন হার্ডওয়্যারে ত্রুটি থাকলেঃ– এছাড়া অন্য কোনো হার্ডওয়্যার সংযোগ অথবা হার্ডওয়্যারে সমস্যা থাকলে কম্পিউটার হ্যাঙ্ হতে পারে।
  • ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হলেঃ– সাধারণত এই কারণেই কম্পিউটারে বেশী হ্যাঙ্ হয়। আর এই ভাইরাস অপারেটিং সিস্টেমের কিছু ফাইলের কার্যপদ্ধতিকে বন্ধ করে দেয় যার কারণে কম্পিউটার প্রায়ই হ্যাঙ্ হয়।
    প্রসেসরের সংযোগ ঠিকমত না হলেঃ– কম্পিউটারের প্রসেসরের সংযোগ ঠিকমত না হলে কম্পিউটার হঠাৎ করে হ্যাঙ্ হতে পারে।এমনকি এর জন্য।কম্পিউটার রিস্টার্ট দেওয়ার পরেও ঠিক নাও হতে পারে। কেননা কম্পিউটারের সকল কাজ করে থাকে প্রসেসর।
    পিসির অপারেটিং সিস্টেমে ত্রুটি থাকলেঃ– অপারেটং সিস্টেমে ত্রুটি বলতে কোনো সিস্টেম ফাইল কেটে যাওয়াকে বুঝায়। যার কারণে কম্পিউটারে সমস্যা হতে পারে।
    উচ্চ গ্রাফিক্স সম্পন্ন সফটওয়্যার ব্যাবহার করলেঃ– কম্পিউটার গেইম এর পাশাপাশি কিছু সফটওয়্যার রয়েছে যেগুলো খুব উচ্চ গ্রাফিক্স সম্পন্ন। যা সাধারণ কম RAM ও কম প্রসেসরের ক্ষমতা সম্পন্ন কম্পিউটারে চালনা করলে কম্পিউটার হ্যাঙ্ হয়।

আরও জানুন…..

পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা অবশ্যই জানাবেন। সবাই ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন এই কামনা করে আমার পোষ্টটি শেষ করছি।

Advertisements

Add comment

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.