Blog71

পৃথিবী ধ্বংশ হবে তিনহাজার সাতশত সাতানব্বাই সালে।

পৃথিবী ধ্বংস হবে অনিবার্য সেটা পৃথিবীর সবাই জানে। কিন্তু ৩৭৯৭ সালে পৃথিবী ধ্বংস হবে এর ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন ভ্যাঙ্গেলিয় প্যানদেভা দিমিত্রোভার।তিনি বিভিন্ন রোগ নিরাময় করতেন অলৌকিক উপায়ে। ১৯১১ সালে জন্ম ভ্যাঙ্গেলিয়ার। তিনি ১৯৯৬ সালে মারা যান ভ্যাঙ্গা ৮৫ বছর বয়েসে। তিনি যে সব ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন তার কিছু ঘটানা আপনাদের মাঝে তুলে ধরলাম।

  • ২১৩০ সালের মধ্যে মানুষ পানির তলায় বসবাসের বন্দোবস্ত করে ফেলবে।
  • ২০২৮ সালে পৃথিবীতে খাদ্য সংকট দেখা দেবে।
  • ২১৩০ সালের মধ্যে ভিনগ্রহের প্রাণীরা পানির নিচে সভ্যতা তৈরি করতে সাহায্য করবে।
  • ইসলামি শক্তির দ্বারা ইউরোপ বিপন্ন হয়ে পড়বে। সিরিয়ায় ইসলামি শক্তিগুলো বিপুল যুদ্ধে জড়িয়ে পড়বে।
  • ২০৭৬ সাল নাগাদ ইউরোপে কমিউনিজম আবার মাথাচাড়া দেবে এবং তার প্রভাব পড়বে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও।
  • ভ্যাঙ্গার মতে, ২০১৬ সাল থেকে ইউরোপের অবলোপ ঘটবে।
  • ৩৭৯৭ সাল নাগাদ পৃথিবীর ধ্বংস অনিবার্য। তবে আশার কথা তত দিনে মানুষ অন্য এক নক্ষত্রলোকের সন্ধান পাবে। সেই স্থানেই গড়ে উঠবে পৃথিবীর উপনিবেশ।
  • ২০৪৩ নাগাদ রোম একটি মুসলিম নগরীতে পরিণতি পাবে। সেখানে প্রতিষ্ঠিত হবে খিলাফতের শাসন।
  • ২০১৮ সালের পর থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সংকটের মধ্যে পড়বে।
  • বিশ্ব রাজনীতিতে চীনের প্রবল উত্থানের কথা বলেছিলেন ভ্যাঙ্গা। সেই সঙ্গে জানিয়েছিলেন, চীন শুক্রগ্রহে নতুন কোনও শক্তির উৎস খুঁজে বের করবে।
  • ২০৪৫ সাল নাগাদ বিশাল হিমশৈলগুলো গলতে শুরু করবে। পৃথিবীর অস্তিত্ব সংকট দেখা দেবে তখন।
    সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন।
Advertisements

Add comment

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.