Blog71

ভূল থেকেই আবিষ্কার হল পেসমেকার কিন্তু কিভাবে তাকি জানেন ?

অনেক মানুষের প্রাণ বেঁচে যায় এই প্রেসমেকারের মাধ্যমে। কিন্তু এই প্রেসমেকার কিভাবে আবিষ্কার হয়েছে সেটা কি জানেন।হয়তো অনেকেই সেটা জানেন না। হ্যাঁ আমি আপনাদের এই বিষয়ের উপর একটি আর্টিকেল লিখেছি অবশ্যই তা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন বলে আমি আসাবাদি। তাহলে চলুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।হৃদস্পন্দনকে নিয়ন্ত্রণ করার এই যন্ত্রের নাম হচ্ছে প্রেসমেকার। একটি মানুষের স্বাভাবিক হৃদস্পন্দন মিনিটে ৬০-৯০ টি। যখন হৃদস্পন্দন কমে যায় তখন এটাকে স্বাভাবিক করার জন্য পেসমেকার ব্যবহৃত হয়। একদম ভুলবশত মানুষের প্রাণ রক্ষাকারী এই পেসমেকারের উদ্ভাবন হয়েছে।

funny stories, inspirationals

উইলসন গ্রেটব্যাচ নামের এক বিজ্ঞানী ছিলেন, তিনি এমন একটি উপায় খুঁজছিলেন যেন হৃৎপিণ্ডের ব্লক সারিয়ে সেটিকে কর্মক্ষম করে তোলা যায়। তিনি পশুদের হৃৎস্পন্দনের শব্দ রেকর্ড করার জন্য তিনি একটি অসিলেটর আবিষ্কার করেছিলেন। মনের ভুলে উইলসন একটি ট্রানজিস্টর সেই যন্ত্রে স্থাপন করেন ১৯৫৮ সালে । তারপর যখন সুইচ অন করেন তখন চেনা একটা শব্দের সাথে মিল খুঁজে পান! শব্দটি এমন একটি ধরণ মেনে চলছে যা মানুষের হৃৎস্পন্দনের সাথে হুবহু মিলে যায়!

উইলসনের এই আবিষ্কারের পরবর্তীতে নাম দেয়া হল পেসমেকার। এই যন্ত্র পশুদের দেহে স্থাপন করে নানারকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন তিনি । ১৯৬০ সালে পেসমেকার প্রথম মানুষের দেহে সফলভাবে প্রতিস্থাপন করা হয়। সূচনা হয় চিকিৎসাবিজ্ঞানের ইতিহাসে একটি নতুন দিগন্তের।

পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা জানাবেন। সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন এই কামনায় আমার পোষ্টটি শেষ করছি।

Advertisements

Add comment

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.