ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসায় মাত্রাতিরিক্ত অর্থ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে রাজধানীর নাম করা স্কয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ কবির স্বাধীন মাত্র ২২ ঘন্টা স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে বিল করা হয়েছে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার টাকা।

স্বাধীনকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) রাত সাড়ে ১১ টায়। তিনি মারা যান শুক্রবার (২৬ জুলাই) রাত ৯.১০ মিনিটে (ডাক্তারের ভাষ্যমতে)। সে মতে ২২ ঘন্টার ও কম সময়ে হাসপাতালে বিল হয়েছে ১লক্ষ ৮৬ হাজার টাকা।

বিলে দেখা গেছে, স্বাধীনের রক্তের ক্রসম্যাচ দেখানো হয়েছে কিন্তু সেটা সম্পন্ন হয়নি।কিন্তু রক্ত পরীক্ষা বাবদ বিল দেখানো হয়েছে প্রায় ২০ হাজার টাকা। ঔষধ বাবদ দেখানো হয়েছে ৩২ হাজার টাকা। অথচ ডাক্তার বললেন স্যালাইনের কথা ও ঢাকা মেডিকেলের নরমাল কিছু ঔষধের কথা। যার সর্বোচ্চ ৫০০ টাকার বেশি হবে না।

অভিযোগ উঠেছে, পরীক্ষা না করিয়েই টাকা, বেড ভাড়া দুইদিনের যেখানে হোটেলের মতো চেক আউট সিস্টেম এ্যাপ্লাই করা হয়েছে। এর মাধ্যমে এটা প্রামাণিত যে, স্কয়ার হাসপাতাল আসলে চিকিৎসার নামে বাণিজ্য করছে।

বিষয়টি সামনে এনে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিবার্তা২৪ডটনেটের সম্পাদক বাণী ইয়াসমিন হাসি সামাজিক মাধ্যমে লিখেছেন-আমি মেয়র সাঈদ খোকন এবং স্কয়ার হাসপাতালের বিরূদ্ধে মামলা করতে চাই।

সূত্র: বিবার্তা২৪ডটনেট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here